• রাজশাহীকে ৩৩ রানে হারিয়ে হ্যাটট্রিক জয় সিলেটের

    November 7th, 2017 by Mostaque

    ক্রীড়া প্রতিবেদক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    সিলেট, ০৭ নভেম্বর: বিপিএলে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে ৩৩ রানে রাজশাহী কিংসকে হারিয়ে হ্যাটট্রিক জয় তুলে নিয়েছে নাসির হোসেনের সিলেট সিক্সার্স। সিলেটের করা ২০৫ রানের জবাবে নির্ধারিত ২০ ওভারে রাজশাহী ৮ উইকেটে ১৭২ রানের বেশি এগুতে না পারায় ৩৩ রানে জিতে যায় সিলেট।

    টানা তিন জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার শীর্ষে রয়েছে সিলেট সিক্সার্স। সিলেট তাদের প্রথম ম্যাচে ঢাকা ডায়নামাইটসকে ৯ উইকেটে এবং দ্বিতীয় ম্যাচে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সকে ৪ উইকেটে পরাজিত করে।

    অপরদিকে এ ম্যাচ হারের ফলে রাজশাহী কিংস টানা দুই ম্যাচে হারের স্বাদ পেলো। এর আগে রাজশাহী তাদের প্রথম খেলায় রংপুর রাইডার্সের কাছে ৬ উইকেটে পরাজিত হয়েছিল।

    ২০৬ রানের বড় লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে রাজশাহীর দুই ওপেনার শুরুটা কিন্তু ভালোই করেছিলেন উদ্বোধনী জুটিতে ৫০ রান এনে দেন দুই ওপেনার মুমিনুল হক ও লুক রাইট। মুমিনুল হক ২৪ রান করে আউট হন। রাজশাহীর পক্ষে সর্বোচ্চ ৫৬ রান করেন লুক রাইট।

    বাকি ব্যাটসম্যানদের মধ্যে একমাত্র ফ্রাঙ্কলিন ছাড়া আর কোনো ব্যাটসম্যানই উল্লেখ করার মতো রান করতে পারেননি। ফ্রাঙ্কলিন করেন ২৩ বলে ৩৫ রান। বাকি ব্যাটসম্যানরা আসা-যাওয়ার মিছিলে যোগ দেন। মুশফিকুর রহীম ১১, অধিনায়ক ড্যারেন স্যামি ৯ এবং মিরাজ ৮ রান করলেও রনি তালুকদার ও সামিট প্যাটের রানের খাতাও খুলতে পারেননি।

    সিলেটের বোলারদের মধ্যে আবুল হাসান ২২ রানে এবং প্লাংকেট ২৯ রানে তিনটি করে উইকেট নেন।

    এর আগে রাজশাহী কিংসের বিপক্ষে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে সিলেট সিক্সার্স নির্ধারিত ২০ ওভারে ৬ উইকেটে ২০৫ রানের বিশাল স্কোর গড়ে।

    প্রথম দুই ম্যাচ টানা জিতে ফুরফুরে মেজাজে থাকা সিলেট সিক্সার্সের দুই ওপেনার উপল থারাঙ্গা ও আন্দ্রে ফ্লেচার আগের দুই ম্যাচের মতো তৃতীয় ম্যাচেও উদ্বোধনী জুটিতে দারুণ সূচনা এনে দিয়েছেন। এই জুটি ১০.৩ ওভার মোকাবেলায় ১০১ রান স্কোরবোর্ডে জমা করে বিচ্ছিন্ন হন।

    সিলেট সিক্সার্সের এই দুই ব্যাটসম্যান প্রথম ম্যাচে ঢাকার বিপক্ষে ১২৫ রানের পার্টনারশিপ গড়েন। দ্বিতীয় ম্যাচে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষেও ৭৩ রানের বড় পার্টনারশিপ গড়েন।

    রাজশাহীর বিপক্ষে ফ্লেচার ৩০ বলে ঝড়ো গতিতে ৪৮ রান করে আউট হন। উপল থারাঙ্গা আউট হন ৩৭ বলে ৫০ রান করে। এরপর টানা তিন ম্যাচে ফিফটি করার নজির গড়লেন এই লঙ্কান ক্রিকেটার। প্রথম ম্যাচে ঢাকা ডায়নামাইটসের বিপক্ষে অপ: ৬৯ এবং দ্বিতীয় ম্যাচে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের বিপক্ষে ৫১ রান করেছিলেন থারাঙ্গা।

    এছাড়া দানুস্কা গুনারত্নের ২২ বলে ৪২ রানের বিধ্বংসী ইনিংস সিলেটের বড় সংগ্রহে ভূমিকা রাখে। তার ইনিংসে দুটি চার ও তিনটি ছক্কার মার রয়েছে। সবচেয়ে হোয়াইটলি ১২ বলে অপ: ২৫ এবং আবুল হাসান ৫ রানে অপরাজিত থাকলে নির্ধারিত ২০ ওভারে সিলেটের স্কোর দাঁড়ায় ২০৫/৬।

    রাজশাহীর বোলারদের মধ্যে কেসরিক উইলিয়ামস দুটি এবং ফরহাদ রেজা ও ফ্রাংকলিন একটি করে উইকেট নেন।

    সিলেট সিক্সার্সের দানুস্কা গুনারত্নে ম্যাচসেরার পুরস্কার পান।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/বিকে

অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন

প্রবাসী তারকা

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০