• খুলনার প্রথম জয়, সিলেটের প্রথম হার

    November 9th, 2017 by Mostaque

    ক্রীড়া প্রতিবেদক

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম

    সিলেট, ০৮ নভেম্বর: নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে এসে প্রথম জয় পেয়েছে খুলনা টাইটাইন্স। আজ বুধবার দিনের দ্বিতীয় খেলায় সিলেট সিক্সার্সকে ৬ উইকেটে পরাজিত করেছে তারা। অপরদিকে চার খেলায় প্রথম হারের স্বাদ পেয়েছে সিলেট সিক্সার্স।

    ১৩৬ রানে জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নেমে সিলেটের তাইজুল ইসলামের ঘূর্ণিতে ১৮ রানেই প্রথম উইকেট হারায় খুলনা। ৭ রান করা নাজমুল হোসেন শান্তকে সরাসরি বোল্ড করে দেন তাইজুল। এর এক বল পরই আবারো তাইজুলের আঘাত। এবারের শিকার ওয়ালটন। ১১ রান করা ওয়ালটনের উইকেটও সরাসরি ওপরে ফেলেন তাইজুল।

    ২ উইকেট পতনের পর ক্রিজে আসেন মাইকেল ক্লিংগার। রুশোকে সাথে নিয়ে ইনিংস মেরামতে মনোযোগী হন। কিন্তু আবারো তাইজুল আঘাত। ১৭ বলে ১৯ রান করা রুশোকে সানটকির ক্যাচে পরিণত করেন তাইজুল। দলীয় রান তখন ৪৩।

    এ অবস্থায় দলের হাল ধরেন অধিনায়ক মাহামুদুল্লাহ রিয়াদ। ক্লিংগার-মাহামুদুল্লা জুটি ৫০ রানের পার্টনারশিপ গড়ে দলকে জয়ের দিকে নিয়ে যান। মাহামুদুল্লাহ হোয়াইটলির বলে আবুল হাসানের তালুবন্দি হওয়ার আগে ১ চার ও ১ ছক্কায় ২৩ বলে মূল্যবান ২৭ রান যোগ করেন। দলীয় রান তখন ৯৩।

    এরপর ক্লিংগার ও ব্রেথওয়েটকে বাকি কাজ সারতে কোনো বেগ পেতে হয়নি। এই দুই ব্যাটসম্যান ২ ওভার বাকি থাকতেই স্কোরবোর্ডে ১৩৮ রান যোগ করে দলকে জয়ের বন্দরে ভেড়ান। সেইসাথে সিলেট সিক্সার্সকে ৬ উইকেটে হারিয়ে প্রথম জয়ের দেখা পায় খুলনা।

    ক্লিংগার ৩৬ বলে অপ: ৪৭ ও ব্রেথওয়েট ১৬ বলে ২৩ রানে অপরাজিত থাকেন।

    এর আগে টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে সিলেট সিক্সার্স ৫ উইকেটে ১৩৫ রান সংগ্রহ করে। এদিন উদ্বোধনী জুটিতে থারাঙ্গা ও ফ্লেচার ভালো সংগ্রহ গড়তে পারেননি। মাত্র ৪ রান করে ফ্লেচার বিদায় নেন। তিনি করেন ৪ রান। দলীয় ২০ রানে কোনো রান না করেই সাজঘরে ফিরে সাব্বির রহমান।

    টানা তিন ম্যাচে ফিফটি করা উপল থারাঙ্গা আজ ২৬ রান করে আউট হন। দলীয় রান তখন ৫১। ৬৭ রানে চতুর্থ উইকেট হারায় সিলেট। গুনাথিলাকা ২৬ রান করে আউট হন।

    এরপর পঞ্চম উইকেট জুটিতে অধিনায়ক নাসির হোসেন হোয়াইটলিকে সাথে নিয়ে ৫৭ রানের পার্টনারশিপ গড়েন। হোয়াইটলি আউট হন ব্যক্তিগত ২৭ রানে। দলীয় রান তখন ১২৪। অধিনায়ক নাসির হোসেন ৩৫ বলে ৪৭ রানে অপরাজিত থাকেন। অপর অপরাজিত ব্যাটসম্যান নূরুল হাসান। তার সংগ্রহ ৩। সেইসাথে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেটে ১৩৫ রান করে সিলেট।

    খুলনার বোলারদের মধ্যে মাহামুদুল্লাহ ও আর্চার দুটি করে এবং শফিউল ইসলাম নেন এক উইকেট।

    ম্যাচসেরার পুরস্কার পান খুলনা টাইটান্স-এর অধিনায়ক মাহামুদুল্লাহ রিয়াদ।

     

    বিডিস্পোর্টস২৪ ডটকম/বিকে

অতিথি কলাম

সাক্ষাৎকার

স্পোর্টস ফ্যাশন

প্রবাসী তারকা

জেলা ক্রীড়া সংস্থা

বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থা

আর্কাইভ ক্যালেন্ডার

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০